সুরক্ষা অ্যাপে টিকা নিবন্ধনে বিপাকে ইবি শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ৮:২০ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২১

সুরক্ষা অ্যাপে টিকা নিবন্ধনে বিপাকে ইবি শিক্ষার্থীরা

ইবি প্রতিনিধি:

সুরক্ষা অ্যাপে করোনার ভাইরাসের টিকা নিবন্ধন করতে বিপাকে পড়েছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) শিক্ষার্থীরা।

 

শুক্রবার (২ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মু. আতাউর রহমান স্বাক্ষরিত কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন সংক্রান্ত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর এ অভিযোগ উঠেছে।

 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “এতদ্বারা ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হলসমূহের আবাসিক ছাত্র-ছাত্রীদের অবগতির জন্য যাচ্ছে যে, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণের লক্ষ্যে সঠিক এনআইডি নম্বরসহ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক প্রেরিত পত্র মোতাবেক সুরক্ষা অ্যাপ-এ নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে হবে। যারা আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের (কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সংক্রান্ত) ফর্ম পূরণ করেছে, তাদেরও সুরক্ষা অ্যাপে-এ নিবন্ধন করতে হবে।”

 

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এমন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর হল সমূহের আবাসিক শিক্ষার্থীরা নিবন্ধনের জন্য বারবার চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হচ্ছে বলে অভিযোগ করছে। নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পেরেছে এমন কাউকে এখনোও পর্যন্ত পাওয়া যায়নি। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর সুরক্ষা অ্যাপ-এর নিবন্ধন কার্যক্রম প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে শিক্ষার্থীরা। ক্ষোভে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও নেতিবাচক মন্তব্য করতেও দেখা গেছে অসংখ্য শিক্ষার্থীদের।

 

সাদ্দাম হোসেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থী আবু সোহান বলেন, “সাম্প্রতিক করোনার ভয়াবহতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিদ্যমান এই পরিস্থিতি দিন দিন ক্রমবর্ধমান। বিশ্ববিদ্যালয়গুলো দেড় বছর যাবৎ বন্ধ। সাম্প্রতিক টিকা প্রদান করার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের হল, ক্যাম্পাস খোলার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। ফলস্বরূপ, আমরা টিকার জন্য একবার নিজেদের সকল তথ্যসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া গুগুল ফর্ম পূরণ করেছি। ইউজিসির পত্র অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আবারও সরকারি সুরক্ষা অ্যাপ-এ গিয়ে ফর্ম পূরণ করতে বলেছে। নিজের সকল তথ্য সঠিকভাবে প্রদান করার পরেও আমরা সুরক্ষা অ্যাপে-এ নিবন্ধন করতে পারছি না। বিষয়টা আমার কাছে জটিলতা তৈরি করছে।”

 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী তারেকুল ইসলাম বলেন, “কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন গ্রহণের লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী হলে স্ব শরীরে এবং অনলাইন গুগুল ফর্ম পূরণ করে প্রয়োজনী তথ্য দিয়ে আবেদন করেছি। সাম্প্রতিক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী সুরক্ষা অ্যাপে-এ নিবন্ধন করতে গেলে ‘দুঃখিত! এই মুহূর্তে আপনি ভ্যাকসিনের জন্য নির্বাচিত নন’ দেখাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং ইউসিজি সুরক্ষা অ্যাপের সিস্টেম আপগ্রেড না করে নির্দেশনা দিয়ে শিক্ষার্থীদের ভোগান্তিতে ফেলা এক ধরণের দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছেন বলে মনে করি।”

 

বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্র মৈত্রী’র সভাপতি আব্দুর রউফ বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীদের করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণের জন্য সুরক্ষা অ্যাপের মাধ্যমে যে রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম শুরু হয়েছে নিঃসন্দেহে তা প্রশংসার দাবিদার। তবে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সেই সুরক্ষা অ্যাপসে আবেদন করতে পারছে না। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উচিত ছিল ভালো মত পরীক্ষা নিরীক্ষা করে তারপর বিজ্ঞপ্তি দেওয়া।

 

তিনি আরো বলেন, অনেক শিক্ষার্থী সুরক্ষা অ্যাপস টিকার জন্য আবেদন করতে গিয়ে বিভ্রান্তির শিকার হচ্ছে। সেই সঙ্গে আমরা সব সময় দাবি করে এসেছি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন এর আওতায় নিয়ে আসতে হবে। কারণ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ৭৫ শতাংশ শিক্ষার্থী অনাবাসিক। আবাসিক শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি অনাবাসিক শিক্ষার্থীদেরও টিকাদানে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সরকারের সঙ্গে সমন্বয় করে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন সেই দাবি জানাই।”

 

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার মু. আতাউর রহমান দৈনিক আলোকিত ভোর-কে বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) থেকে চিঠি পেয়েই বিজ্ঞপ্তি দিয়েছি। শিক্ষার্থীদের এমন অভিযোগ পেয়ে আমরা সংশ্লিষ্ট দপ্তরে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। কোভিড-১৯ এর ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম যেহেতু সরাসরি সরকারি ব্যপস্থাপনায় হচ্ছে সুতরাং আমাদের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো ছাড়া আপাতত কিছুই করার নেই।”

 

এব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসির) পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় ম্যানেজমেন্ট বিভাগের পরিচালক মোঃ জামিনুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, “১ জুলাই থেকে আবেদন শুরু হলো, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ৩০ জুন থেকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠানো শিক্ষার্থীদের তালিকা ওয়েবসাইটে আপলোড শুরু করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এখন নিবন্ধন করতে পারছে, ক্রমান্বয়ে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও নিবন্ধনের কাজ সম্পন্ন করতে পারবে।”

ফেসবুকে আমরা

পুরাতন সব সংবাদ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

এই মাত্র পাওয়া