অপরাধ ও দূর্নীতি

নওগাঁর বদলগাছীতে রিজিওনাল মার্কেটিং ম্যানেজার জাহিদের মাদকের আসর!

নওগাঁ প্রতিনিধিঃ- নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার কাষ্টগাড়ী গ্রামের মাঠে ফিড এন্ড সিক্স  নামের একটি মাছের খাদ্য উৎপাদন ও সরবরাহ কোম্পানীর রিজিওনাল মার্কেটিং ম্যানেজার জাহিদের নিয়মিত মাদকের আসর বসে বলে জানা গেছে। এই আসরে এলাকার কিছু তরুণ নিয়মিত অংশ গ্রহন করছে। ফলে এলাকায় একদিকে মাদকসেবীদের সংখ্যা বাড়ছে অপরদিকে দিন দিন আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটছে। এতে এলাকার অভিভাবকরা চরম আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে।

এলাকাবাসীসূত্রে জানা গেছে, বছর দুয়েক আগে মাছের খাদ্য উৎপাদন ও সরবরাহকারী ‘ফিড এন্ড সিক্স’ নামের একটি  প্রতিষ্ঠানের রিজিওনাল মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মো: জাহিদ হোসেন। বিভিন্ন পুকুর পরিদর্শনের নামে বদলগাছী উপজেলার কাষ্টগাড়ী মাঠে তিনি নিয়মিত যান এবং সেখানে একটি পুকুর পাড়ে নিয়মিত মাদকের আসর বসান। এই আসরে মাদকের জোগান দেন জয়পুরহাট জেলার নহেলা বাঁশকাটা গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী শ্রী পরি মন্ডল। জানাগেছে জয়পুরহাট থানায় পরিমন্ডলের নামে একাধিক মাদকের মামলা রয়েছে। এই মাদকের আসরে যোগ দেয় এলাকার কমবয়সী তরুণরা এবং রিজিওনাল মার্কেটিং ম্যানেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন মো: জাহিদ হোসেনেকে ভিডিও তেও দেখা গেছে।

কাষ্টগাড়ী গ্রাম সূত্রে জানান, কোম্পানীতে চাকুরী করতে এসে মাদকের আসর বসিয়ে এলাকার তরুনদের মাদকাসক্ত করছে এই জাহিদ। আমরা এর অপসারন ও শাস্তি দাবি করছি।

মথুরাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য তার নাম গোপন করতে বলে জানান, শুনেছি একজন কোম্পানীর লোক কাষ্টগাড়ী মাঠে নিয়মিত মাদকের আসর বসাচ্ছে। এ ব্যাপারে এলাকাবাসী ও প্রশাসনের সহযোগিতায় মাদকের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এ ব্যাপারে জাহিদ হোসেন জানান,  আমি ফিড এন্ড সিক্স কোম্পানীতে চাকরি করি । আমি কোনো মাদক ব্যবসায়ী নয় বা আমি মাদক ব্যবসা করিনা এবং মাদক ব্যবসায়ীদের কোনো মামলার তদবির করিনা । তবে আমি একদিন মাদক সেবন করেছি মজা করে । তিনি আরও বলেন আমি সেই দিন মাদক সেবন করে ছিলাম শুধু মাত্র আমার ডিলার মালিকের ভাইয়ের বিয়ে ছিল তাই সেই দিন বাংলা মদ, ভারতীয় ফেন্সিডিল ও বিয়ার কয়েক জনকে নিয়ে খেয়ে ছিলাম । তবে এবিষয়ে তার সাথে মোবাইল ফোনে যোগায়োগ করলে তিনি বলেন আসেন নিউজ না করে আসেন দেখা করি লেনদেন এর বিনিময়ে মিট করি আসেন।

ফিড এন্ড সিক্স কোম্পানীর ডিরেক্টর সাহাদত হোসেন (তৌফিক) বলেন, আমরা তার কাগজ পত্র জাচাই বাছাই করে তাকে কোম্পানীতে চাকরি দিয়েছি । কিন্তু সে মাদক ব্যবসায়ী কিনা বা মাদক সেবন করেন কিনা সে সম্পর্কে আমার জানা নাই।

Tags

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
You cannot copy content of this page
Close
Close