“ভিনিসিয়াস -আসেনসিওর গোলে সেমির পথে রিয়াল”

প্রকাশিত: ৩:৩১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ৭, ২০২১

“ভিনিসিয়াস -আসেনসিওর গোলে সেমির পথে রিয়াল”

খেলাধুলা: তিন বছর আগে ফাইনালে কাইরাস কান্ডের শিকার হয় অল রেডরা,তার দু-দুটি বাচ্চা সুলভ ভুলে শিরোপা হারায় সালাহ -মানে – ফিরমিনোরা।

গতকাল অবশ্য ভুল হলো রক্ষণে, কিছুটা দায় আছে গোলরক্ষকেরও। তাতে প্রতিশোধ নেওয়ার বাসনা পূরণ হলো না লিভারপুলের। বড় জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমি-ফাইনালের পথে এগিয়ে গেল রিয়াল মাদ্রিদ।

তবে, রিয়ালের মাঠে একটি গোল পাওয়ায় ফিরতি লেগে ইয়ুর্গেন ক্লপের দলের ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা টিকে আছে ভালোমতোই। আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার রাতে কোয়ার্টার-ফাইনালের প্রথম লেগে ৩-১ গোলে জিতেছে প্রতিযোগিতার রেকর্ড ১৩ বারের চ্যাম্পিয়নরা।

খেলার ২৭ মিনিটে ভিনিসিয়াসের গোলে এগিয়ে যায় জিদান শিষ্যরা। এরপর অবশ্য বেশিক্ষন অপেক্ষা করতে হয়নি মার্কো আসেনসিওর দারুন ফিনিশিং -এ প্রথম অর্ধের আগেই ২-০ গোলে এগিয়ে যায় টানা তিনবার ও রেকর্ড ১৩ বার উচল জয়ী দলটি।

প্রথম অর্ধে বিবর্ণ লিভারপুল সেকেন্ড হাফে খেলায় ফেরার চেষ্টা করে। ৫১ মিনিটে মোহাম্মাদ সালাহ গোল করলে স্কোর লাইন দাড়ায় ২-১। তবে লিভারপুলের কফিনে শেষ পেরেকটি গেঁথে দেন পুরো ম্যাচে অসাধারণ খেলা ভিনিসিয়াস জুনিয়ার।

ক্রোয়াট ক্যাপটেন লুকা মাদ্রিচ এর দারুন পাস থেকে ৬৫ মিনিটে স্কোর লাইন ৩-১ এ এগিয়ে এক রকম খেলা শেষ-ই করে দেন।

গতকাল রিয়ালের হয়ে মাঠে ছিল না দুই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস, এবং রাফায়েল ভারানে। দুর্বল রক্ষন নিয়ে মাঠে নামে রিয়াল,তবে লিভারপুলের ফরোয়ার্ডদের হতশ্রী পার্ফামেন্স তাদের কোন পরিক্ষায় নিতে পারেনি উল্টো গোল খেয়ে বসে ইংলিশ ক্লাবটি।

গত রাত লিভারপুলের জন্য দুঃস্বপ্নের মতো কাটলেও,দারুন এক রাত ছিল মাদ্রিদ আর ভিনিসিয়াসের জন্য।গত রাতে দারুন দুই গোল করার সুবাদে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে রিয়ালের দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা হলেন ভিনিসিউস, ২০ বছর ২৬৮ দিন বয়সে।

তালিকার শীর্ষে আছেন রাউল গনসালেস; ১৯৯৬ সালের মার্চে ইউভেন্তুসের বিপক্ষে ১৮ বছর ২৫৩ দিন বয়সে গোল করেছিলেন তিনি।

রিয়ালের সামনে মুষড়ে পড়া লিভারপুলের এ দৃশ্য যেন এখন পরিচিত হয়ে উঠছে এর আগে ২০১৭-১৮ আসরের ফাইনালে গোলরক্ষক লরিস কারিয়ুসের ভুলে দুটি গোল হজম করেছিল লিভারপুল। শেষ পর্যন্ত তারা হেরেছিল ৩-১ গোলে। হ্যাটট্রিক শিরোপা জিতেছিল রিয়াল।

যাহোক, অপেক্ষা এখন ফিরতি পর্বের লড়াইয়ের। অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা কাজে লাগিয়ে আগামী ১৪ এপ্রিল অ্যানফিল্ডে ঘুরে দাঁড়ানোর লক্ষ্যে মাঠে নামবে প্রিমিয়ার লিগ চ্যাম্পিয়নরা। ভীষণ বাজে সময়ের মধ্যে দিয়ে যাওয়া দলটির ঘরোয়া ফুটবলে সব শিরোপার আশাই শেষ হয়ে গেছে। একমাত্র সম্ভাবনা বেঁচে আছে এই চ্যাম্পিয়ন্স লিগে।

ফেসবুকে আমরা

পুরাতন সব সংবাদ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
এই মাত্র পাওয়া