সিরাজুল ইসলামের কবিতা ‘বিজয়’

প্রকাশিত: ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ , ডিসেম্বর ১৩, ২০২০

বিজয়

মোঃ সিরাজুল ইসলাম

আমি সবার মত যেমনটা সুস্থ-সবল-বীর্যবানরা থাকে-

আছি গভীর ঘুমে বিভোর হয়ে ,

চির ব্যর্থময় শান্তি আর নিরবতার ঘুম যা অন্যকে বিরাগ বা অমলিন না করে ।

তেমনটাই ঘুমাচ্ছি যেমনটা উম্মাত-মাতাল-ভবঘুরে-অবোধ আর পথশিশুরা ঘুমায়,

কিন্তু না সেই ঘুমটাও ব্যর্থ, যা স্থায়ী হলো না শেষ নিঃশ্বাস অবধি ।

গভীর নিদ্রায় বিবেক যেন কথা বলছে সবুজ পাড়ের লাল শাড়ি পরা নারীর সাথে,

প্রবল জিজ্ঞাসু মনে জানতে চাওয়া আমার ঘুম কাতুরে অচেতন মনে ।

ছলছল আঁখিতে অম্লান মুখে জবাব আসলো,“আমি তোমাদের মা বিজয়” ,

তার জবাবে বললাম আমি,এই নামে আগে কাউকে তো শুনি নি !

তাকে বলা এই গভীর রাতে আর অসময়ে কেন তবে আমার কাছে ;

আর কি কেউ নাই মানুষ এই স্বার্থপর আর ঘৃণাময় রাতে ?

এবার যেন বিরক্ত আর চোখ বড় করে জবাব দিলো-

“ তোমরা আজ বড়ই নিষ্ঠুর-পাষাণ-নির্দয় আর মিথ্যা স্বদেশ প্রেমের বুলিতে ডুবন্ত,

তোমরা কেমনে ভুললে তবে বীরত্বে গাঁথা আর লাখো সম্ভ্রমের মূল্য;

আবারও যেন বাংলাদেশ ভরে উঠেছে দুর্নীতি-শোষণ-ঘৃণা-ধর্ষণ আর খুনে ।

তাই ছদ্দবেশে আসা সেই তরুণ-জোয়ান আর বীর্যবানদের পানে,

যাদের হাতে একদিন উঠেছিল অস্ত্র আর কণ্ঠে বিপ্লবী সব গান ।

যারা মৃত্যু পানে ছুটে এনেছিল স্বাধীনতা জীবন করেও দান’’ ।

আমি হতবাক হয়ে বললাম তারে ব্যথীত আমরা দুর্নীতি-শোষণ-ঘৃণা-ধর্ষণ আর খুনে,

কি আর আছে তবে আমাদের করবার এই স্বার্থপরদের কবলে থাকা স্বদেশ মাতার তরে ?

“ধিক্কারের স্বরে বলল যেন নির্বোধ তোমরা গৌরবময় অতীত ভুললে কেমনে ,

তোমাদের মুক্ত প্রাণের স্বপ্ন দেখাতে জীবন দিয়েছিল ত্রিশ লক্ষ প্রাণ সম্ভ্রম বিলাতে হয়েছিল দুই লক্ষরেরও বেশি মা-বোনদের ।

উপদেশের সহিত বলল তবে,“জাগ্রত হও আবার নারী-পুরুষ-বৃদ্ধ-বণিতা ;

এই গৌরবময় দিবসে করে দৃঢ় অঙ্গীকার,

মৃত্যুতেও না হই যেন আমরা পিছ-পা, না করে সকল জঞ্জাল-আবর্জনা আর আগাছা পরিষ্কার ”।

আমি হতবাক বিজয় নাকি লজ্জিত আজ, তরুণদের কঠিন ও সঙ্কট সময়ে অসাড় হয়ে থাকায় !!

 

লেখক- মো: সিরাজুল ইসলাম

শিক্ষার্থী, ইংরেজি বিভাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রিয় পাঠক, আপনিও লিখতে পারেন আমাদের পোর্টালে। কোন ঘটনা, পারিপাশ্বিক অবস্থা, জনস্বার্থ, সমস্যা ও সম্ভাবনা, বিষয়-বৈচিত্র বা কারো সাফল্যের গল্প, কবিতা,উপন্যাস, ছবি, আঁকাআঁকি, মতামত, উপ-সম্পাদকীয়, দর্শনীয় স্থান, প্রিয় ব্যক্তিত্বকে নিয়ে ফিচার, হাসির, মজার কিংবা মন খারাপ করা যেকোনো অভিজ্ঞতা লিখে পাঠান সর্বোচ্চ ৩০০ শব্দের মধ্যে। পাঠাতে পারেন ছবিও। মনে রাখবেন দৈনিক আলোকিত ভোর.কম পোর্টালটি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের জন‌্য উন্মুক্ত। তাছাড়া, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার স্বাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবর অথবা লেখা মান সম্পন্ন এবং বস্তুনিষ্ঠ হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে। লেখা পাঠানোর ইমেইল- dailyalokitovor@gmail.com