পাঠাগার চাই (চিঠিপত্র)

প্রকাশিত: ১১:৪৩ পূর্বাহ্ণ , ডিসেম্বর ২৫, ২০২০

ইবিঃ রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ী উপজেলাধীন নবীনগর বারহাটী একটি জনবহুল ও বর্ধিষ্ণু গ্রাম। এ গ্রামে প্রায় নয় হাজার লোকের বসবাস।

এলাকায় রয়েছে উচ্চ বিদ্যালয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়, হাফেজিয়া মাদ্রাসা, আলিয়া মাদরাসা ছাড়াও অনেক সরকারি-বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এলাকার প্রায় ৮০ শতাংশ মানুষ শিক্ষিত। শিক্ষাদীক্ষায় অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় এলাকাটি বেশ অগ্রসর।

কিন্তু এখানে কোনো পাঠাগার বা গ্রন্থাগার নেই। অত্র এলাকায় অনেক দরিদ্র শিক্ষার্থীরা রয়েছেন যাদের বই কিনে পড়ার মতো সামর্থ্য হয়ে ওঠে না ফলে তারা জ্ঞানার্জনের দিক দিয়ে অনেকটাই পিছিয়ে পড়ছেন।

জ্ঞানপিপাসু ও শিক্ষার্থীদের বহুদূরে জেলা শহরে গিয়ে বই, পত্রপত্রিকা সংগ্রহ করতে হয়। এলাকায় একটি পাঠাগার বা লাইব্রেরি থাকলে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সব শ্রেণীর মানুষ তথ্য ও জ্ঞানার্জনের সুযোগ পেত। উঠতি বয়সী তরুণরা বইপত্র, পত্রিকা পড়ে যোগ্য নাগরিক হিসেবে নিজেদের গড়ে তোলার সুযোগ পেত।

প্রমথ চৌধুরীর মতে, ‘লাইব্রেরি হচ্ছে এক ধরনের মনের হাসপাতাল।’ পুথিগত বিদ্যার ভারে জেরবার ছাত্রসমাজের মানসিক প্রশান্তির জন্য পাঠাগার অপরিহার্য।

বর্তমান সরকার শিক্ষার মান উন্নয়নে ও বহুমুখী শিক্ষা বিস্তারের লক্ষ্য রেখে উপজেলা পর্যায় থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পর্যায়ে পাঠাগার স্থাপনের উদ্যেগ নিলে ও তা যে কাগজ কমলেই সীমাবদ্ধ।

আশা করি, আলোকিত সমাজ গঠন ও বিদ্যানুরাগীদের জ্ঞানপিপাসা মেটাতে এখানে একটি পাঠাগার স্থাপনের জন্য কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

মো: আব্দুল হাকিম জুবাইর
নবীনগর গ্রামের বাসিন্দা ও
শিক্ষার্থী, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া
আইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিভাগ
সদস্য, বাংলাদেশ তরুণ কলাম লেখক ফোরাম
ইমেইল ঃ abdulhakimjubair@gmail

প্রিয় পাঠক, আপনিও লিখতে পারেন আমাদের পোর্টালে। কোন ঘটনা, পারিপাশ্বিক অবস্থা, জনস্বার্থ, সমস্যা ও সম্ভাবনা, বিষয়-বৈচিত্র বা কারো সাফল্যের গল্প, কবিতা,উপন্যাস, ছবি, আঁকাআঁকি, মতামত, উপ-সম্পাদকীয়, দর্শনীয় স্থান, প্রিয় ব্যক্তিত্বকে নিয়ে ফিচার, হাসির, মজার কিংবা মন খারাপ করা যেকোনো অভিজ্ঞতা লিখে পাঠান সর্বোচ্চ ৩০০ শব্দের মধ্যে। পাঠাতে পারেন ছবিও। মনে রাখবেন দৈনিক আলোকিত ভোর.কম পোর্টালটি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের জন‌্য উন্মুক্ত। তাছাড়া, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার স্বাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবর অথবা লেখা মান সম্পন্ন এবং বস্তুনিষ্ঠ হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে। লেখা পাঠানোর ইমেইল- dailyalokitovor@gmail.com