পারিবারিক বিয়েতে হ্যাঁ বলার আগে যে ৪টি বিষয় মনে রাখা জরুরি

প্রকাশিত: ৭:৩৬ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১
পারিবারিক বিয়েতে হ্যাঁ বলার আগে যে ৪টি বিষয় মাথায় রাখা জরুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক: আমাদের সমাজে একটা প্রচলিত রীতি আছে যে বিয়ের আগে ছেলে বা মেয়ে একে অপরের সাথে বেশি মেলামেশা করতে পারবে না। তাদের বিভিন্ন বিধিনিষেধ মেনে চলতে হয়। ফলে একে অপরকে জানার খুব একটা সুযোগ হয় না।

এই অবস্থায় বিয়ের পর নতুন একটা পরিবারে হঠাৎ করে খাপ–খাওয়াতে কিছু সমস্যা হয়। তাই পারিবারিক বিয়েতে হ্যাঁ বলার আগে ৪ টি বিষয় মনে রাখা জরুরি।

সরাসরি বলা
আপনার হবু স্বামী বা স্ত্রীর সাথে সরাসরি কথা বলুন। সম্পর্ক থেকে আপনি যা চান তা খুলে বলুন। মনে যে সব বিষয়ে নিয়ে সন্দেহ রয়েছে তা আপনার জীবন সঙ্গীর সাথে খুলে বলুন এবং নিজের কোনো সীমাবদ্ধতা থাকলে সেটাও আলোচনা করুন। বৈবাহিক সম্পর্ক থেকে আপনি কী চান তা বলুন এবং বিয়ের পরে জীবনের লক্ষ্য নিয়ে আপনার মানুষটির সাথে সম্পর্ক তৈরির আগেই ভাগ করে নিন।

খোলাখুলি আলোচনা
যেহেতু দু’জনের মাত্র পরিচয়ের শুরু, তাই নিজেদের মধ্যে আলোচনার ক্ষেত্রে দূরত্ব এড়িয়ে চলেতে হবে। নিজের আচরণের বিষয়েও উন্মুক্ত মনোভাব রাখুন। অতীত সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন করা হলে তার জবাব দিতে দ্বিধাবোধ করবেন না। মনে রাখবেন এ জাতীয় বিষয় জেনে রাখা আপনাদের ভবিষ্যতে সুন্দর দাম্পত্য জীবনের জন্য খুব স্বাভাবিক।

পরিবার
বিয়ের জন্য `হ্যাঁ’ বলার আগে আপনার হবু শ্বশুরবাড়ির সবার সঙ্গতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছেন কিনা তা জানার চেষ্টা করুন। তাদের পারবারিক মূল্যবোধ সম্পর্কে জানার জন্য বেশি সময় কাটান।

সামঞ্জস্যতা বা মিল
পারিবারিকভাবে বিয়েতে হ্যাঁ বলার আগে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো একে অপরের মনের মিল আছে কিনা তা জেনে রাখা। আর্থিক বিষয় থেকে শুরু করে মানসিকতার মিল রয়েছে কিনা তা বিয়েতে সম্মতি দেয়ার আগে নিশ্চিত হওয়া আবশ্যক।

সূত্র : পিঙ্কভিলা

প্রিয় পাঠক, আপনিও লিখতে পারেন আমাদের পোর্টালে। কোন ঘটনা, পারিপাশ্বিক অবস্থা, জনস্বার্থ, সমস্যা ও সম্ভাবনা, বিষয়-বৈচিত্র বা কারো সাফল্যের গল্প, কবিতা,উপন্যাস, ছবি, আঁকাআঁকি, মতামত, উপ-সম্পাদকীয়, দর্শনীয় স্থান, প্রিয় ব্যক্তিত্বকে নিয়ে ফিচার, হাসির, মজার কিংবা মন খারাপ করা যেকোনো অভিজ্ঞতা লিখে পাঠান সর্বোচ্চ ৩০০ শব্দের মধ্যে। পাঠাতে পারেন ছবিও। মনে রাখবেন দৈনিক আলোকিত ভোর.কম পোর্টালটি সকল শ্রেণী পেশার মানুষের জন‌্য উন্মুক্ত। তাছাড়া, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার স্বাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবর অথবা লেখা মান সম্পন্ন এবং বস্তুনিষ্ঠ হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে। লেখা পাঠানোর ইমেইল- dailyalokitovor@gmail.com