পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষা

মিমাংসার নামে রাবির দুই শিক্ষার্থীকে চাপাতি নিয়ে মারধর!

রাবি প্রতিনিধি: মিমাংসা বৈঠকে ডেকে চাপাতি দিয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের ২২৫ নং কক্ষে এ ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ওই দুই শিক্ষার্থী।

ভুক্তভোগীরা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের আল আকাবা সুহার্ত এবং দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফরিদ হাসান এম শামীম।

অভিযুক্তরা হলেন, একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের, তৌহিদুর রহমান বাপ্পী, রিয়াব হোসেন, আলিনুর বাদশা, নজীব হোসেন, দিপু চন্দ্র রায়, আবু বকর সিদ্দিক রিমু, এবং রাবি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন কিস্কু।

সুহার্তর অভিযোগ, বন্ধুদের একে অপরের রেষারেষির ঘটনায় একটু মনোমালিন্য এবং ধাক্কাধাক্কি হয়। সেই বিষয়টি সমধানের জন্য বিভাগের বড় ভাই রুহুল আমিন কিস্কু তার রুমে ডাকেন। সেখানে গেলেই তিনি মিমাংসা করে নেওয়ার কথা বলেন। তবে বাপ্পী, আর দুইজন ফ্রেন্ড মিলে ফরিদকে মারধর শুরু করে। পরে কিস্কু দাদা চাপাতি নিয়ে দাড়িয়ে পড়েন এবং ফরিদকে চাপাতির উল্টা পিঠ দিয়ে পায়ের উপর আঘাত করেন। ঠেকাতে গেলে তাকেও ধরে মারধর করে ওরা।

ফরিদ বলেন, তৌহিদুর রহমান বাপ্পী, রিয়াব হোসেন, আলিনুর বাদশা, নজীব হোসেন, দিপু চন্দ্র রায়, আবু বকর সিদ্দিক রিমু তার বন্ধু হন। তারা সবাই দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তারাও তাকে মারধর করেন। এসময় চাপাতি নিয়ে দাড়িয়ে ছিলেন।

ঘটনার পর ক্যাম্পাসে কর্মরত সাংবাদিকেরা সেখানে উপস্থিত হন। তখন রুহুল আমিন কিস্কুর রুমের টেবিলের উপর চাপাতিটি লক্ষ্য করেন তারা।

মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রুহুল আমিন কিস্কু বলেন, বিভাগের কিছু ছোট ভাই সি আর নির্বাচন নিয়ে নিজেদের মধ্য দ্বন্দে জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি সমাধানের জন্য আমার কাছে এসেছিলো। বিষয়টি নিয়ে আলোচনার সময় তারা নিজেদের মধ্যে মারামারি শুরু করে। আমি তাদের দুপক্ষকে শান্ত করে রুম থেকে বের করে দিই। এসময়য় তাদেরকে দু একটা চড় থাপ্পর মেরেছিলাম। তবে চাপাতি দিয়ে মারধরের ঘটনাটি অস্বীকার করেন তিনি।

যদিও এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, চাপাতি দিয়ে রুমে সবজি কাটা হয় এবং সবজি কাটার জন্য হাসুয়াও রুমে আছে বলে দাবি করেন তিনি।

এদিকে ফরিদের সহপাঠী তৌহিদুর রহমান বাপ্পীর কাছে মারধরের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি প্রথমে এমন কোনো ঘটনা জানেন না বলে দাবি করেন। তবে পরে বলেন, একটু সমস্যা হয়েছিলো সেটি মিটে গেছে। তিনি মারধরের সাথে জড়িত নন।

Tags

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close