দেশজুড়েবরিশাল বিভাগ

চরাঞ্চলকে বিদ্যুতের আলোতে আলোকিত করেছে পংকজ নাথ এমপি

হিজলা প্রতিনিধিঃ বরিশালের হিজলা উপজেলার পূর্ব পাড়ের চরাঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল বিদ্যুতের। স্থানীয় সাংসদ পংকজ নাথ র ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ২০১৯ সালে সাড়ে ৩ শত কিলোমিটার বিদ্যুতের অনুমোদন করে বর্তমান সরকার। সাবমেরিন ক্যাবলের মাধ্যমে তিন কিলোমিটার মেঘনার তলদেশ দিয়ে বিদ্যুতের তার টেনে কাজ শুরু করে। এতে প্রাথমিকভাবে খরচে পরিমাণ প্রায় ৮৪ কোটি টাকা। স্বল্প সময়ের মধ্যেই হিজলা গৌরবদী, মেমানিয়া ও হরিনাথপুর ইউনিয়ন এর আংশিক এলাকার হাট-বাজার সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় এরই মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগের কার্যক্রম সম্পন্ন করে।

৯ ফেব্রুয়ারি বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে বাতি জ্বালিয়ে বিদ্যুৎ সংযোগের কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্থানীয় সাংসদ পংকজ নাথ।এতে প্রাথমিকভাবে প্রায় ২০ হাজার গ্রাহক বিদ্যুতের সুবিধা পাবে

এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বেলায়েত হোসেন ঢালী,পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি বরিশাল ১ এর জেনারেল ম্যানেজার প্রকৌশলী শংকর কুমার কর, উপজেলা নির্বাহি অফিসার আমিনুল ইসলাম,বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক শাহজাহান তালুকদার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিলের প্রাক্তন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা তোফাজ্জল হক খোকা চৌধুরী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ আলতাব হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম,উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক বড়জালিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পন্ডিত সাহাবুদ্দিন আহমেদ,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেমানিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন হাওলাদার, থানা অফিসার ইনচার্জ অসীম কুমার সিকদার সহ নানা শ্রেণি পেশার নেতৃবৃন্দ।উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হিজলা গৌরবদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মিলন।
সভা পরিচালনা করেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক কাজী লিয়াকত হোসেন।

বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়ায় চরাঞ্চলের মানুষ বিভিন্ন এলাকায় মিষ্টি বিতরণ সহ আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠেছে।

বিদ্যুৎ সংযোগের কারণে চরাঞ্চলের মানুষের হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছেন সাংসদ পংকজ নাথ এমনটাই বলেন রাজনৈতিক ও স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণীপেশার নেতৃবৃন্দ।

বিদ্যুৎ সংযোগের কারণে চরাঞ্চলের মানুষ কি কি সুবিধা পাবে এমন প্রশ্নের উত্তরে।দৈনিক আজকাল পত্রিকার প্রতিনিধি ডাক্তার নাসিরুদ্দিন বলেন এই বিদ্যুতের কারণে চরাঞ্চল আর উন্নয়নে পিছিয়ে থাকবে না এখানকার মানুষ কলকারখানাসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম হাতে নিয়ে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাবে।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিজলা গৌরবদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মিলন বলেন কোনদিন স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি এই অবহেলিত দুর্গম চরাঞ্চলে বিদ্যুৎ পাব কিন্তু আজ স্বপ্নের চেয়েও বেশি দ্রুত গতিতে আমরা বিদ্যুৎ পেয়েছি এটা শুধু এমপি পংকজ নাথের কারণেই সম্ভব হয়েছে।আমি বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও এমপি পংকজ নাথ কে চরাঞ্চল বাসীর পক্ষ থেকে প্রাণঢালা অভিনন্দন।

Tags

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close