পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষা

চবি সাংবাদিককে ছাত্রলীগকর্মীর হেনস্তা!

চবি প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) জুনায়েদ হোসেন জয় নামের এক ছাত্রলীগকর্মীর বিরুদ্ধে সাংবাদিককে হেনস্তা করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (চবিসাস) পক্ষ থেকে তিন দিনের সময় দিয়ে প্রক্টর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সোয়া ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ঝুপড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী সাংবাদিকের নাম জোবায়ের চৌধুরী। তিনি দৈনিক বণিক বার্তার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ও চবি সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক।

অন্যদিকে অভিযুক্ত জয় ইতিহাস বিভাগের ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর অনুসারী বলে ক্যাম্পাসে পরিচিত।

জানা যায়, গতকাল মঙ্গলবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর সোয়া ১টার দিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ঝুপড়িতে বন্ধুবান্ধবসহ দুপুরের খাবার খেতে আসেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের চৌধুরী।

এসময় ছাত্রলীগ কর্মী জুনায়েদ হোসেন জয় এসে জোবায়েরকে আচমকা বেশ কয়েকবার ‘তুই’ সম্বোধন করে ধাক্কা দিয়ে সরতে বলে। কিন্তু এর কিছু সময় পর জুনায়েদ নামে ওই ছাত্রলীগ কর্মীর এক বন্ধু ওই খাবারের দোকানে আসলে সে আবারও জোবায়েরকে ধাক্কা দিয়ে উঠে যেতে বলে। এসময় জোবায়ের বিষয়টি জানতে চাইলে তাকে শার্টের কলার ধরে মারতে উদ্যত হয় ছাত্রলীগ কর্মী জুনায়েদ।

ঘটনার সময় উপস্থিত ছাত্রলীগের অন্যান্য নেতাকর্মীরা জোবায়েরের পরিচয় দিলেও জুনায়েদ ক্ষিপ্ত হয়ে ফের অসৌজন্যমূলক আচরণ করে। একই সাথে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতিকে নিয়েও বিরূপ মন্তব্য করে ওই ছাত্রলীগ কর্মী।

এব্যাপারে অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মী জুনায়েদ আহমেদ জয় বলেন,”পুরো ঘটনাটি একটি ভূল বুঝাবুঝি। পরে যখন জানতে পারি তিনি সাংবাদিক সমিতির সেক্রেটারি তখন তার কাছে ক্ষমা চেয়েছি।”

এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন টিপুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কেউ সংগঠনের নাম ব্যবহার করে যা খুশি করতে পারেনা, সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার অধিকার কারো নেই।এ ঘটনার সাথে যেই জড়িত থাকুক না কেন আমরা তদন্ত করে দ্রুত সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিব।

এব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর এস এম মনিরুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, এ ধরনের ঘটনা অনভিপ্রেত। আমরা লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। যথাযথ ব্যবস্থা নিব।

Tags

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close