মাতৃত্ব

প্রকাশিত: ৭:১৯ অপরাহ্ণ, মে ১৭, ২০২১

মাতৃত্ব

মাতৃত্ব

        সুবর্ণা খান

কলঙ্কময়ী,,,,
জাইগোটের অসম্পূর্ণ এক অধ্যায় আমি।
নানা ধিক্কার, নানা অশ্রাব্য আর
নানা অর্ধচন্দ্রের মধ্যেই তিলে তিলে
অমরার বন্ধনে আবদ্ধ আমি।

দিব্যি বেড়ে উঠছি,,,,,
তবুও সে নত হয়নি
বিলীন করেনি তার-আমার অস্বীকৃত
সমাজমুখে নষ্ট ;এই অস্তিত্বটুকুকে।

রক্তচোষার মতো করেই
দিন-রাত শুষে নিচ্ছি তার সবটা।
তবুও সে নিস্তেজ হয়ে পড়েনি,
কেবল বিধাতার নিকট ফরিয়াদ করে,
“আমি না বাঁচিলেও, বাঁচাইয়ো মোর ভ্রূণীয় অংশটুকুন”

নাক ফুলিয়ে কান্না, আর তীব্র নিঃশ্বাসের
তরঙ্গ যেন আমার কর্ণকুহরে
বজ্রের মতো আঘাত হানে।
তবুও নিশ্চুপ,নির্বাক আমি
তাঁরই ভরসার দ্বারপ্রার্থী।
সে কেবলই দিন গুনে যায়….
তার বয়ে নিয়ে চলা,অস্বীকৃত এক আত্নারটানে।

হঠাৎ……….
চারদিক বজ্রের ধ্বনি,তবে আকাশ যে মলিন।
গোটা পৃথিবী কর্মব্যস্ত,
শুধু,আমার অস্তিত্বের ধারক আজ
নিশ্চুপ!!….
নিশ্চুপ এক কোণে।
জনে জনে ভীড় করছে,
কেউবা তুলছে ফটো।
কারো কারো আবার আফসোস হচ্ছে..
অস্বীকৃতার পেটে ওমন
ফুটফুটে চাঁদের টুকরো দেখে।

সবাই ব্যস্ত,কেউ শুনছেনা আমার আর্তনাদ।
তবে কি!!কালে কালে, যুগে যুগে,,,
জয়ী হবে রক্তচর্মহীন পাষণ্ডুরা?
দূর থেকে অপরিচিতার ভণিতা করে
পাশ কাটিয়ে যাবে
পরিচিতার অমলিন আত্মাটুকুকে।

বারংবার কি পরাজয় মেনে নিবে
মাতৃত্বের এই পবিত্র অধ্যায়।
তবে, এভাবেই কি বেড়ে উঠবে?..
তোমাদের তথাকথিত ভদ্র সমাজ।

জেনে রাখো তবে….
একদিন জাগ্রত হবে সকল অস্বীকৃতার
শেষ চিহ্নটুকুন।
সেই দিন দাঁড়িপাল্লার উর্ধ্বে তুমি
আর তোমার দেওয়া অস্বীকৃতার
পাল্লা করবে ভূমি স্পর্শ।
সেই দিন বুঝিবে তুমি মাতৃত্বের ভার,,
এবং সেই ভার করিবে বিনাশ তোমার।

 

শিক্ষার্থী, এসইউবি

ফেসবুকে আমরা

পুরাতন সব সংবাদ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
এই মাত্র পাওয়া