পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষা

শিবির আখ্যা দিয়ে রাবি শিক্ষার্থীকে যবিপ্রবির নিয়োগ বোর্ডে বাতিল!

শিক্ষামন্ত্রীকে খোলা চিঠি

দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, শিক্ষা ক্ষেত্রে যখন বাংলাদেশের উন্নতি চোখে পড়ার মতো, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর নিরলস প্রচেষ্টা যখন সকল স্তরে বৈষম্য নিরসন করার দারপ্রান্তে, ঠিক তখনই মুজিব বর্ষের ভাষার মাসে আমি বৈষম্যের শিকার।

প্রেক্ষাপট: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মাইনিং ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক পদে বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী আবেদন করলে বিভাগের যাচাই-বাছাই শেষে দুটি পদের বিপরীতে দুজনকে যোগ্য বিবেচনা করে নিয়োগ বাছাই বোর্ডে উপস্থিত হওয়ার জন্য ইন্টারভিউ কার্ড দেয়। আমি সে অনুযায়ী ভাইভা বোর্ডে উপস্থিত হই।

এবার আমার বিষয়ে সংক্ষিপ্ত তুলে ধরলাম, আমি ২০০৫ সালে দাখিল এবং ২০০৭ আলিম পাশ করে ২০০৭/০৮ শিক্ষা বর্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগে ভর্তি হয়ে ২০১১ সালে বিএসসি এবং ২০১২(অনুষ্ঠিত ২০১৫) সালে এমএস শেষ করি ভবিষ্যতে গবেষক হয়ে দেশের জন্য কিছু করার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে দেশে প্রচলিত চাকুরীর প্রিপ্রারেশন না নিয়ে পথ চলা শুরু করি স্রোতের বিপরীতে এক দুর্গম পথে মানসিক সন্তুষ্টির জন্য ভর্তি হই পিএইচডি প্রোগ্রামে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ইন্সটিটিউটে ২০১৮ সালে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করে ২০১৯ সালে রিসার্চার হিসাবে স্কলারশিপ নিয়ে জাপানের টয়োমা প্রিফেকচারাল ইউনিভার্সিটিতে কর্মরত আমার গবেষণা জীবনের এই অতি অল্প সময়ে আমি আন্তর্জাতিক ১৭ টি নিবন্ধ প্রকাশ করি তার মধে Springer এবং Elsevier মিলিয়ে ১৩ টি নিবন্ধ

এবার আসি ভাইভাঃ ভাইভা বোর্ডে ঢুকতেই মাননীয় উপাচার্য মহোদয় জিজ্ঞাসা করলেন, ‘আপনি এসএসসি ও এইচএসসি মাদ্রাসা থেকে পাস করেছেন, আপনার মধ্যে সে-রকম কোনো লক্ষণ পাচ্ছি না। মাদ্রাসার ছাত্ররা তো শিবির করে, আবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা শিবির করে। আমি আপনার গবেষণা ও ডিগ্রি দেখে চাকরি দিবো বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, কিন্তু এখন আর আমি আপনাকে নিবো না। ’ বাকি কিছু ফর্মালিটিস শেষে বিদায়।

আমার কিছু প্রশ্নের উত্তর আশা করছি-
১. আমিতো আমার কোন তথ্য গোপন করিনি তাহলে যদি মাদ্রাসা থেকে পড়াশোনা করার অপরাধে চাকরি না হলে ডাকা হলো কেন?
২. জাপান থেকে এই করোনাভাইরাস আতঙ্ক নিয়ে দেশে এই খরচ কে বহন করবে?
৩. তাহলে কি উচ্চ শিক্ষিত বিদেশে অবস্থানরত বেকারের কাছে মজা নিলেন উপাচার্য মহোদয়?
৪. মাদ্রাসা থেকে পাস করা সকল শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার সুযোগ বন্ধ করা সময়ের দাবি কি না?
৫. দেশি মেধাবী শিক্ষার্থীদের দেশে ফিরার অন্তরায় কি না? মাননীয় শিক্ষা মন্ত্রী আপনার সুদৃষ্টি কামনায়

লেখক-
ড. মোঃ ফিরোজুর রহমান

সাবেক শিক্ষার্থী, ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় 
পিডি গবেষক
টোয়মা প্রিফেকচারাল ইউনিভার্সিটি, জাপান

Tags

এ জাতীয় আরো খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close